গ্যালারি থেকে যে কোন অ্যালবাম লুকিয়ে রাখার পদ্ধতি

0

আবির হাসান: মাঝে মধ্যে বন্ধুরা স্মার্টফোন নিয়ে বড্ড বেশিই বাড়াবাড়ি করে ফেলে, তাইনা? গেম খেলতে খেলতে মজা করে ব্যক্তিগত অ্যালবাম ঘাটতে শুরু করে দেয়? এরকম হলে সত্যিই মাঝে মধ্যে বিরক্তির সীমা ছাড়িয়ে যায় কেননা মানুষের সাধারণ বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে নিজেকে লুকিয়ে রাখা। বেশীরভাগ মানুষই নিজেকে এবং নিজের একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়গুলোকে বাইরের দুনিয়া থেকে ঢেকে রাখতে পছন্দ করেন। আর পরিবার বা প্রিয় মানুষটির সাথে কাটানো কিছু প্রিয় মুহূর্তের সময় বন্দী করে তৈরি করা অ্যালবামগুলোকেও এজন্যে আমরা ঢেকে রাখতে পছন্দ করি। একারণে মাঝে মধ্যে আমাদের হয়ত গ্যালারী অ্যাপ থেকে কোন একটি ফোল্ডার বা অ্যালবামই লুকিয়ে রাখার প্রয়োজন হতে পারে। কিন্তু, আপনি কি জানেন কীভাবে সম্পূর্ণ অ্যালবাম লুকিয়ে রাখতে হয় বা হিডেন করতে হয়? চলুন, শিখিয়ে দিচ্ছি।

পদ্ধতি ১ – Gallery Lock 

আপনি যদি আপনার সেই ব্যক্তিগত অ্যালবামগুলো (ছবির বা ভিডিওর হতে পারে) লুকিয়ে রেখে সেগুলোকে আবার আরও একটি নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দিতে চান তাহলে Gallarey Lock অ্যাপলিকেশনটি আপনার হয়ে এই কাজটি করে দেবে খুব সহজেই। আপনাকে শুধুমাত্র আপনার গ্যালারি অ্যাপ থেকে ছবি বা অ্যালবামগুলো এই অ্যাপলিকেশনের মুভ করতে হবে। কাজটি একেবারেই সহজ।

Gallary Lock অ্যাপলিকেশনটি ইন্সটল করার পর যখন আপনি প্রথমবারের মত রান করবেন তখন আপনাকে একটি নতুন পিন সেট করার জন্য বলবে। ডিফল্ট ভাবে সম্ভবত অ্যাপলিকেশনটিতে ৭৭৭৭ পিনটি ব্যবহার করা হয়। আপনি চাইলে প্রথমেই এই পিনটি পরিবর্তন না করে পরে যে কোন সময়েও এটি পরিবর্তন করতে পারবেন।  এই অ্যাপলিকেশনটির মাধ্যমে আপনি যদি কোন ছবি হাইড করতে চান তবে অ্যাপলিকেশনটি দিয়ে একটি নতুন ফোল্ডারগুলো উক্ত ফাইলগুলো সেই ফোল্ডারে ট্র্যান্সফার করতে হবে। এরপর আপনি অ্যাপটির উপরে একটি সবুজ প্লাস বাটন দেখতে পাবেন। আপনি ট্র্যান্সফার করা ছবিগুলোর মধ্যে থেকে যেগুলো হাইড করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করে প্লাস বাটনে ট্যাপ করলেই ফাইলগুলো হাইড হয়ে যাবে। অ্যাপলিকেশনটি কীভাবে কাজ করে তা আরও পরিষ্কারভাবে জানার জন্য নিচের ছোট্ট এই ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

একটি হিডেন ফাইল আনহাইড করার জন্য তৈরি করা ফোল্ডারটিতে ঢুকে উক্ত ছবিটিতে ট্যাপ করে হোল্ড করে ধরে রাখলেই আনহাইড এর অপশন দেখা যাবে।

ডাউনলোড লিংক – Gallery Lock (Hide Puctures)

পদ্ধতি ২ – যে কোন ফাইল ম্যানেজার 

আপনি যদি বাড়তি কোন অ্যাপলিকেশন ব্যবহার করে অ্যালবাম হাইড করতে না চান তবে আপনি যে কোন ফাইল ম্যানেজার ব্যবহার করে খুব সহজেই কাজটি করতে পারবেন। এজন্য আপনাকে শুধু ফাইলম্যানেজার দিয়ে যে ফোল্ডারটি হাইড করতে চান তার নাম .nomedia নামে রিনেম করতে হবে। ব্যাস! ফোল্ডারটি হাইড হয়ে যাবে।

যে কোন ফাইল ম্যানেজারের মাধ্যমে কাজটি করা গেলেও আমি প্রিফার করব ASTRO File Manager বা ES File Managerকে। ASTRO File Manager ব্যবহার করে কীভাবে এই কাজটি করতে হয় তার আরও স্পষ্টভাবে বুঝে নেয়ার জন্য নিচের ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

হাইড করা ফাইল পুনরায় আনহাইড করার জন্য আপনাকে ফাইল ম্যানেজারের অ্যাডভানস অপশন থেকে ‘show hidden files’ নামের অপশনটি ইনাবল করে দিতে হবে। এবং এরপর আপনি সেই ফোল্ডারটি যখন দেখতে পাবেন তখন আবার রিনেম করলেই ফোল্ডারটি এবং ফোল্ডারটির ভিতরে থাকা কম্পোনেন্টগুলো ভিসিবল হয়ে যাবে।

ডাউনলোড লিংক – ASTRO File Manager 

মন্তব্য করুন

টি মন্তব্য

Share.

Comments are closed.