স্যামসাং এর বিশ্ব জয়ের আওয়াজ পাওয়া যায়

0

খবরটি পড়ে পাঠক একটুও চমকে যাবেন না কিন্তু! যদিও ব্যাপারটি অবশ্য চমক জাগানিয়া। তাতে কী? কিছু কিছু সময় কিন্তু হুট করেই চমক সৃষ্টি হয় না। এর পেছনে থাকে অনেক খণ্ড খণ্ড গল্প। এসব গল্প জোড়া লাগালে তৈরি হয় বড় গল্প। যেকোন গল্পেরই থাকে নানান উপাদান। তবে প্রধান চরিত্রের প্রতিই সবার একটু অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে। এই গল্পের প্রধান চরিত্রে রয়েছে স্যামসাং। কেননা পৃথিবী জুড়ে প্রতিষ্ঠানটির জয়ের আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছে। আর এই জয়ের খবরটি জানাচ্ছে প্রযুক্তিভিত্তিক ওয়েব সাইট সিনেট। প্রতিষ্ঠানটি জানাচ্ছে, পুরনো হয়ে যাওয়া আইফোন বদলে নতুন আইফোন নেওয়া গ্রাহকদের সংখ্যা ক্রমেই হ্রাস পাচ্ছে । আইফোনের বদলে অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারের দিকে ঝুঁকছেন গ্রাহক। আর অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছে স্যামসাংয়ের স্মার্টফোন।

বিশ্ব জয়ের চিত্র

যারা প্রযুক্তি ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কে ধারণা রাখেন তাদের স্মার্টফোন কেনা-বেচার ওয়েবসাইট ব্যাংকমাইসেল-এর সাথে নিশ্চয়ই পরিচয় আছে। সংস্থাটি পুরান হয়ে যাওয়া ডিভাইসের মূল্য যাচাই করে ডিভাইসটি বিক্রি করে নতুন ফোন কিনতে সহায়তা প্রদান করে থাকে। সম্প্রতি ওয়েবসাইটটি’র প্রকাশিত ডেটা থেকে দেখা যাচ্ছে বর্তমানে ক্রেতাদের আইফোন চেয়ে স্যামসাংয়ের স্মার্ট ডিভাইস কেনার প্রতি ঝোঁক বেশি। সংস্থাটি জানাচ্ছে, গত জুন মাসে ১৮.১ শতাংশ আইফোন ব্যবহারকারী স্যামসাংয়ের স্মার্ট ডিভাইস কিনেছেন।

অ্যাপল ব্র্যান্ডের প্রতি গ্রাহকদের আস্থা কতটুকু রয়েছে সেটা যাচাই করতে গত অক্টোবর থেকে এবছর পর্যন্ত ৩৮ হাজারেরও বেশি মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর ডেটা সংগ্রহ করেছে। জরিপ বিশ্লেষণ করে প্রতিষ্ঠানটি দেখতে পায় যে, প্রতিবারই স্যামসাং স্মার্ট ডিভাইস কিনছে এমন গ্রাহকের সংখ্যা অনেক বেশি। এছাড়াও জরিপে উঠে এসেছে শতভাগের মধ্যে ৯২.৩ শতাংশ গ্রাহক যারা  অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করছে তাদের অধিকাংশই স্যামসাং স্মার্টফোন ব্যবহারকারী। একটি তুলনার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি দেখাচ্ছে যে, ২৬ শতাংশ গ্রাহক আইফোন ছেড়ে অন্যান্য ব্র্যান্ডের স্মার্ট ডিভাইসের প্রতি ঝুঁকছে বিশেষ করে স্যামসাং ব্র্যান্ডের ডিভাইসের প্রতি।

জরিপটি দেখাচ্ছে, ১২.৪ শতাংশ আইফোন ব্যবহারকারী ব্র্যান্ড বদলে স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোন ব্যবহার করছে। মজার বিষয় হচ্ছে, ১.৯ শতাংশ আইফোন ব্যবহারকারী অ্যপল ব্র্যান্ড সম্পর্কে জানেনই না।

আইফোন টেনএস/ টেনএস ম্যাক্স/ আইফোন টেন আর ডিভাইসগুলো বাজারে উন্মোচিত হওয়ার পর ৬৬.৪ শতাংশ গ্রাহক অ্যাপলের প্রতিই আস্থা রেখেছিল। কিন্তু ২৪.৫ শতাংশ আইফোন ব্যবহারকারীরা অন্যান্য ব্র্যান্ডের দিকে ঝুঁকেছিল। এর মধ্যে ১৩.৮ শতাংশ নতুন ব্যবহারকারী নিয়ে বরাবরের মতোই শীর্ষে ছিল স্যামসাং।

জরিপে আরো দেখা যাচ্ছে, চলতি বছর অ্যাপল তাদের ছুটে যাওয়া গ্রাহকদের ৫.৭ শতাংশ নিজেদের ডেরায় ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছিল। কিন্তু মজার ব্যাপার হচ্ছে, স্যামসাং আইফোনের ২.২ শতাংশ গ্রাহক নিজেদের পক্ষে রাখতে সক্ষম হয়েছিল।

জরিপ থেকে আরো যা জানা যায়, দীর্ঘদিন আইফোন ব্যবহার করার পর কিছু গ্রাহক বলছে তাদের অভিজ্ঞতা মোটেই সুখকর ছিল না। পূর্বে যারা আইফোন টেনএস এবং টেনএস ম্যাক্স ব্যবহার করত তাদের ১৮.৫ শতাংশ উদ্ভাবনী প্রযুক্তি সম্পন্ন স্যামসাংয়ের স্মার্টফোনের দিকে ঝুঁকছে।

জরিপের মাধ্যমে আমরা দেখতে পাচ্ছি যে, বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্র্যান্ডের স্মার্ট ডিভাইগুলো ছেড়ে গ্রাহকরা যোগ দিচ্ছেন স্যামসাংয়ের শিবিরে। হঠাৎ করেই কিন্তু বিষয়টি ঘটেনি। এর পেছনে রয়েছে নিত্য নতুন উদ্ভাবন, গ্রাহকদের চাহিদা বোঝা, বিভিন্ন ধরনের বাজেট ফোন বাজারে নিয়ে আসা এবং সর্বোপরি গ্রাহক সন্তুষ্টির কারণেই স্যামসাং এর গ্রাহক সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব জয়ের পথে।

 

 

 

মন্তব্য করুন

টি মন্তব্য

Share.

Comments are closed.